ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ – ওজন কমান মাত্র ১ মাসেই!

ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ

ওজন কমানোর জন্য কিছু ব্যায়াম ও কিছু ভাল অভ্যাসের তৈরির মাধ্যমে আমরা আগামী ১ মাসে কমপক্ষে ৫ কেজি ওজন কমানোর চমৎকার কিছু উপায় এর সাথে এখন পরিচিত হবো। ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ থাকায় যে কেউ খুব সহজেই বুঝতে পারবে কিভাবে ব্যায়ামগুলো করতে হবে।

যে অভ্যাসগুলো আমাদের কাজ অর্ধেকই কমিয়ে দিবে

কিভাবে শুরু করবেন?

শুরু করার জন্য, সপ্তাহে ৩ – ৪ দিনে ৩০ মিনিট হাঁটার চেষ্টা করুন। আস্তে আস্তে আপনার যখন আত্নবিশ্বাস বাড়বে তখন ধীরে ধীরে অন্যান্য অভ্যাসগুলো যেমন – জগিং, সাইকিলিং ও সাতারকাটা ইত্যাদি শুরু করতে পারেন। শুরুতেই একসাথে সবগুলো না করে আস্তে আস্তে আপনার লাইফস্টাইলের সাথে মানিয়ে নিন, এতে করে এই বিষয়গুলো আপনার কাছে আনন্দদায়ক মনে হবে।

হাটা (Walking)

সঙ্গত কারণেই হাঁটা ওজন কমানোর জন্য অন্যতম সেরা ব্যায়াম। নতুনদের জন্য হাটাহাটি অনেক সুবিধাজনক কারণ এটা শুরু করা সহজ এবং এর জন্য কোন যন্ত্রপাতি কেনার দরকার হয় না।

হাভার্ড হেলথ কর্তৃক এক গবেষনায় দেখা গেছে, ৭০ কেজি ওজনের একজন লোক ঘন্টায় ৬ কিলোমিটার বেগে ৩০ মিনিট হাটলে প্রায় ১৬৭ ক্যালরি বার্ন হয়। এছাড়া আপনার দৈনন্দিন কাজের রুটিনের মধ্যে হাটার বিষয়টি যোগ করা বেশ সহজসাধ্য ।

আপনার প্রতিদিনের বিভিন্ন কাজে হাটা যোগ করতে, আপনার মধ্যাহ্ন ভোজের বিরতির সময় হাঁটার চেষ্টা করুন, কর্মক্ষেত্রে লিফট ব্যবহার না করে সিঁড়ি ব্যবহার করুন।  এছাড়া বিকেলে  হাঁটার জন্য আপনার কুকুরকে সাথে নিয়ে যেতে পারেন

জগিং (Jauging)

আপনাকে ওজন কমাতে সাহায্য করার জন্য জগিং এবং দৌড়ানো দারুণ ব্যায়াম। এই দুইটি কাজ একই রকম মনে হলেও এর মধ্যে মূল পার্থক্য হল জগিং এর গতি সাধারণত ঘন্টায় ৬ থেকে ৯ কিলোমিটার হয়ে থাকে এবং দৌড়ানোর গতি হয়ে থাকে ১০ থেকে ১৫ কিলমিটার ঘন্টা।

সাইক্লিংই (Cycling)

সাইক্লিং একটি জনপ্রিয় ব্যায়াম যা আপনার ফিটনেস উন্নত করে এবং আপনাকে ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে।

যদিও সাইক্লিং ঐতিহ্যগতভাবে বাইরে করা হয়, অনেক জিম এবং ফিটনেস সেন্টারে স্থির বাইক বা স্ট্যাটিক সাইকেল আছে যার মাধ্যমে আপনি ঘরেই সাইক্লিং করতে পারবেন।

ওজন কমানোর জন্য শুধু সাইক্লিংই দারুণ নয়, গবেষণায় দেখা গেছে যে যারা নিয়মিত সাইকেল চালায় না তাদের তুলনায় যারা নিয়মিত সাইকেল চালায় তাদের সামগ্রিক ফিটনেস, ইনসুলিন উৎপাদন বৃদ্ধি এবং হৃদরোগ, ক্যান্সার এর মত রোগে মৃত্যুর ঝুঁকিতে কম থাকেন।

শুরু থেকে ক্রীড়াবিদ ও সাধারন মানুষের ওজন কমানোর জন্য সাইক্লিং দারুণ । এছাড়াও, এটি একটি ভার বিহীন এবং কম প্রভাবের ব্যায়াম, তাই এটি আপনার জয়েন্টগুলোতে বেশি চাপ পড়বে না।

সাতার কাটা (Swimming)

সাতারকাটা হলো ওজন কমানো সহ শরীরের অন্যান্য যে কোন সমস্যায় আদর্শ একটি ব্যায়াম। সাতারকাটার ফলে শরীরের রক্ত সঞ্চালন বাড়ে এবং শরীরের প্রায় সবগুলা জয়েন্ট এর মুভমেন্ট হয় যা সুস্থ থাকা এবং ওজন কমাতে দারুন ভাবে সাহায্য করে।

ইয়োগা বা মেডিটেশন (Yoga or Meditation)

যোগ ব্যায়াম  মানসিক চাপ দূর করার একটি জনপ্রিয় উপায়। যদিও এটিকে সাধারণত ওজন কমানোর ব্যায়াম হিসেবে ভাবা হয় না, তবে এটি যথেষ্ট পরিমাণে ক্যালোরি পোড়ায় এবং অনেক অতিরিক্ত স্বাস্থ্য সুবিধা প্রদান করে যা ওজন কমাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

ওজন কমানোর এই ৬ টি ব্যায়াম ছবি সহ কিভাবে করবেন?

ওজন কমানোর জন্য ছবি সহ এই ব্যায়ামগুলো ছবিতে দেয়া নিয়মনুসারে প্রতিদিন প্রত্যেকটি ব্যায়াম ৫ মিনিট করে দিনে ৩০ মিনিট ধরে চালিয়ে গেলে আশা করছি আপনি কাঙ্ক্ষিত সময়ের মধ্যেই সফলতা পাবেন।

১। জাম্পিং জ্যাক ব্যায়াম (Jumping Jack Exercise)

হল ওজন কমানোর একটি সহজ, কার্যকরী এবং মজাদার উপায়। এর জন্য ন্যূনতম প্রচেষ্টা প্রয়োজন এবং যে কোনও জায়গায় করা যেতে পারে।

ওজন কমানোর ব্যায়াম Jumping Jack Exercise

২। স্কোয়াট এক্সারসাইজ (Squats Exercise)

স্কোয়াট এক্সারসাইজের উপকারিতা সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। এটা আপনার কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে, রক্তচাপ কমাতে পারে এবং আপনার বিপাককে উন্নত করতে সাহায্য করে।

ওজন কমানোর ব্যায়াম Squats Exercise

৩। পুশ আপ (Push Ups)

পুশ আপ একটি ক্লাসিক ব্যায়াম যা যেকোনো জায়গায় করা যেতে পারে। পুশ আপ শরীরের উপরের শক্তি এবং সহনশীলতা তৈরির জন্য একটি কার্যকর ব্যায়াম। তবে এটি পেট, নীচের পিঠ এবং নিতম্বের মূল পেশী তৈরি করতেও এবং ওজন কমাতে দারুনভাবে সহায়তা করে।

ওজন কমানোর ব্যায়াম Push Ups

৪। সিট আপ  (Sit Ups)

সিট আপ একটি ব্যায়াম যা পেটের পেশীগুলিকে শক্তিশালী করে। আপনার হাঁটু নব্বই ডিগ্রি কোণে বাঁকিয়ে এবং আপনার পা মেঝেতে সমতল রেখে আপনার পিঠের উপর শুয়ে এটি করা হয়।  দ্রুত ওজন কমানোর জন্য এই ব্যায়ামটি পুশ আপ এর মত কার্যকরী।

ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ Sit Ups

৫। ফরওয়ার্ড লাং এক্সারসাইজ (Forward Lunge exercise)

ফুসফুস ব্যায়াম হল একটি জনপ্রিয় ওজন কমানোর ব্যায়াম যার মধ্যে একটি পা বাঁকানো এবং বিপরীত পা দিয়ে এগিয়ে যাওয়া অন্তর্ভুক্ত থাকে যাতে শরীরের বেশিরভাগ বা সমস্ত ওজন এক পায়ে থাকে এবং বেশিরভাগ পা অন্য অংশের সামনে থাকে। এটি ওজন কমানোর পাশাপাশি শরীরের ভারসাম্য রক্ষার পদ্ধতিকে উন্নত করে।

ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ Forward Lunge exercise

৬। ওয়াল সিটিং (Wall Sitting)

ওয়াল সিটিং হল একটি সাধারণ ব্যায়াম যা আপনার পিঠের পেশী শক্তিশালী করে ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে।

ব্যায়াম করার জন্য দেয়ালের সোজা একটি অংশ বেছে নিন।  ছবিতে দেখানো উপায়ে দেয়ালে আপনার পিঠে ঝুঁকতে হবে এবং আপনার পা নব্বই-ডিগ্রি কোণে রেখে প্রায় দুই ফুট উপরে তুলতে হবে। এই ব্যায়ামটি করার সময় গভীর শ্বাস নেওয়া উচিত এবং তারপরে দেখানো উপায়ে যতক্ষণ সম্ভব এভাবে থাকার চেষ্টা করুন।

ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ Wall Sitting

আরো পড়ুন

লম্বা হওয়ার উপায় ও ব্যায়াম ছবি সহ

কি খেলে বাচ্চার ওজন বাড়ে – নবজাতক থেকে ২ বছর বয়স পর্যন্ত

ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল?

সারাংশঃ

ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ এই আর্টিকেলটিতে শুধুমাত্র ব্যায়ামগুলোর ছবি দেয়া হলো ।  ওজন কমানোর জন্য জগিং করা ও হাটার পাশাপাশি এই আর্টিকেলে দেয়া  প্রত্যেকটি এক্সাস্রাইজ নিয়মিত ৫ মিনিট ধরে অনুসরণ করা ও পরিমিত খাদ্য গ্রহনই ওজন কমানোর এই লক্ষ্মাত্রা অর্জনের জন্য যথেষ্ঠ।

বোনাস টিপস (Bonus Tips)

ওজন কমানোর ব্যায়াম ছবি সহ দেখে দেখে এক্সারসাইজ করে আমাদের ওজন কমানোর সমাধান তো হয়ে গেল, কিন্তু প্রতিদিন কতটুকু ওজন কমছে নাকি বাড়ছে তা অবশ্যই লক্ষ রাখতে হবে। এছাড়া সঠিক (BMI) জানতে বাসায় ভাল মানের ওজন মাপার মেশিন রাখতে পারেন, এতে করে আপনি নিয়মিত আপনার ওজন মেপে দেখতে পারবেন যে উচ্চতা অনুযায়ী আপনার ওজন ঠিক আছে কিনা।

Tanita Digital Weighing Machine
Digital Weighing Machine with BMI Calculation for home use

সেরা ৫ টি ওজন মাপার মেশিনের নাম ও দাম জানতে এখানে ক্লিক করুন। 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *