কখন নেবুলাইজার ব্যবহার করবেন

কখন নেবুলাইজার ব্যবহার করবেন

নেবুলাইজার কোনও ওষুধ নয়, এটি একটি বিশেষ ধরনের শ্বাস-প্রশ্বাসের ডিভাইস বা যন্ত্র যা ফুসফুসের বিভিন্ন সমস্যা, যেমন- অ্যাজমা, হাঁপানি, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা, সিস্টিক ফাইব্রোসিস ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হয়। তবে এর সঠিক ব্যবহার না জানা থাকলে ঠিকমতো ওষুধ প্রয়োগ করা হয় না আর ওষুধ প্রয়োগেই যদি ভুল হয় তবে অসুখ সারানো নিয়ে সন্দেহ থাকবেই। আর বেশির ভাগ মানুষ এর সঠিক যত্নও নিতে পারেন না।  

অ্যাজমা ও শ্বাসকষ্টের রোগীদের ফুসফুসে সরাসরি তরল ওষুধ প্রয়োগের বহুল পরিচিত যন্ত্রটির নাম নেবুলাইজার। এই যন্ত্রটি দিয়ে তরল ওষুধকে সংকুচিত করে বাষ্পীভূত করে বাতাসের সাথে নেবুলাইজারের মাস্কের মাধ্যমে শ্বাস গ্রহনের সময় ফুসফুসের শ্বাসনালী ও অ্যালভিউলিতে ঢুকে শ্বাসকষ্ট দূর করে। 

নেবুলাইজার হল এক ধরনের শ্বাসযন্ত্র যা আপনাকে ওষুধযুক্ত বাষ্প শ্বাস নিতে দেয়।  কাশির জন্য সবসময় নির্ধারিত না হলেও, শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থতার কারণে সৃষ্ট কাশি এবং অন্যান্য উপসর্গ উপশম করতে নেবুলাইজার ব্যবহার করা যেতে পারে।  এগুলি বিশেষত অল্প বয়সী গোষ্ঠীগুলির জন্য সহায়ক যাদের হ্যান্ডহেল্ড ইনহেলার ব্যবহার করতে অসুবিধা হতে পারে।

কার নেবুলাইজার এর দরকার

বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা পরিস্থিতির জন্য একজন ব্যক্তির নেবুলাইজার ব্যবহার করতে হতে পারে।

এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি কারণ নিচে দেয়া হলো –

চিকিত্সকরা সাধারণত নিম্নলিখিত ফুসফুসের ব্যাধিগুলির মধ্যে একটিতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য নেবুলাইজার লিখে দেন:

  • হাঁপানি
  • ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ (সিওপিডি)
  • সিস্টিক ফাইব্রোসিস
  • ব্রঙ্কাইক্টেসিস
  • কখনও কখনও, একজন ডাক্তার একটি শিশুর জন্য একটি নেবুলাইজার লিখে দেবেন যার শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ আছে, যেমন ব্রঙ্কিওলাইটিস।

কিভাবে নেবুলাইজার ব্যবহার করবেন

একজন ব্যক্তি নেবুলাইজার দিয়ে ওষুধ খাওয়া শুরু করার আগে, একজন ডাক্তার বা নার্স ব্যাখ্যা করবেন কিভাবে নেবুলাইজার কাজ করে এবং যেকোনো প্রশ্নের উত্তর দেবেন।

যদি একজন ব্যক্তি একটি ফার্মেসি বা চিকিৎসা সরঞ্জাম কোম্পানি থেকে তাদের নেবুলাইজার গ্রহণ করেন, তাহলে সেখানে কেউ কীভাবে এটি ব্যবহার করবেন তা ব্যাখ্যা করবেন।

প্রতিটি নেবুলাইজিং মেশিন একটু ভিন্নভাবে কাজ করে। ডাক্তার যে নির্দিষ্ট ডিভাইসটি নির্দেশ করেছেন তার জন্য নির্দেশাবলী পড়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

সাধারণভাবে, একটি নেবুলাইজার ব্যবহার করা খুব সহজ, শুধুমাত্র কয়েকটি প্রাথমিক পদক্ষেপ সহ:

  1. হাত ধুয়ে নিন।
  2. ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ওষুধের কাপে ওষুধ যোগ করুন।
  3. উপরের টুকরা, টিউবিং, মাস্ক এবং মাউথপিস একত্রিত করুন।
  4. নির্দেশাবলী অনুযায়ী, মেশিনে টিউব সংযুক্ত করুন।
  5. নেবুলাইজার চালু করুন; এগুলি ব্যাটারি বা বৈদ্যুতিক চালিত হতে পারে।
  6. নেবুলাইজার ব্যবহার করার সময়, সমস্ত ওষুধ সরবরাহ করতে সাহায্য করার জন্য মুখপত্র এবং ওষুধের কাপটি সোজা রাখুন।
  7. মুখবন্ধ দিয়ে ধীরে ধীরে, গভীর শ্বাস নিন এবং সমস্ত ওষুধ শ্বাস নিন।
  8. অনুগ্রহ করে ডাক্তারের সাথে কথা বলুন বা ডিভাইস সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন বা উদ্বেগ থাকলে নির্মাতাকে কল করুন।

সাধারণত, একটি নেবুলাইজার এবং এটি ব্যবহার করা ওষুধের জন্য একজন ডাক্তার বা অন্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীর প্রেসক্রিপশনের প্রয়োজন হয়।

প্রেসক্রিপশন ছাড়াই অনলাইনে একটি নেবুলাইজার মেশিন কিনতে পাবেন, যদিও একজন ডাক্তারকে ঔষধ লিখে দিতে হবে।

যাইহোক, কিছু ওষুধ প্রস্তুতকারকদের একটি নির্দিষ্ট ধরণের নেবুলাইজার ব্যবহার করা প্রয়োজন, তাই কেনার আগে ফার্মাসিস্ট বা ডাক্তারের সাথে কথা বলে নেয়া ভাল।

নেবুলাইজারে ওষুধের মাত্রা
নেবুলাইজ করার সময় রোগীকে আরামদায়কভাবে শোয়া অবস্থায় রাখতে হবে। নেবুলাইজারের বিভিন্ন অংশগুলো জোড়া দিয়ে ২৩ মিলি পানি, ৫-১ সালবিউটামল ও প্রয়োজনে ৫ মিলি ইপ্রাট্রোসিয়াম সলিউশান মিশিয়ে নিতে হবে। বিদ্যুৎ সুইচ অন করে মাস্ক মুখে নিয়ে রোগীকে ধীরে ও লম্বা শ্বাস নিতে হবে। ৩-৬ মিলি তরল ৫/১০ মিনিটে নেবুলাইজ করা হয়।

কোন রোগীর জন্য নেবুলাইজার মেশিন?

যাদের শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা আছে যেমন অ্যাজমা, সিওপিডি বা দীর্ঘমেয়াদি শ্বাসকষ্ট রোগ ইত্যাদি আছে এবং সরাসরি ইনহেলার নিতে পারেন না বিশেষ করে তাদের জন্যই নেবুলাইজার মেশিন ব্যবহার করে। তাছড়াও বর্তমান সময়ে ছোট শিশুদেরকে ওষুধ খাওয়ানর পরিবর্তে নেবুলাইজারের মাধ্যমে শ্বাসনালিতে দেওয়া হয়।

নেবুলাইজার মেশিনের দাম

ব্যাবহারের ধরন ও সুবিধা বিবেচনায় নেবুলাইজারের দাম কম বেশি হতে পারে। সাধারনত ছোট এবং পোর্টেবল নেবুলাইজারের দাম বড় নেবুলাইজারের থেকে কম হয়ে থাকে। নিচে কয়েরকটি ভালমানের নেবুলাইজারের  দাম ও ছবি দেয়া হলো –

বড় ও ছোটদের জন্য উপযোগী এই নেবুলাইজারগুলতে আছে ১ বছরের ওয়ারেন্টি

আরো পড়ুন

নেবুলাইজার কি ও ব্যবহারের নিয়ম 

কি খেলে বাচ্চার ওজন বাড়ে – নবজাতক থেকে ২ বছর বয়স পর্যন্ত

ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল?

সারাংশঃ

নেবুলাইজার নিয়ে আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করতে পারেন অথবা ফোন করে সরাসরি জিজ্ঞেস করতে পারেন।

লেখকঃ আসিফুর রহমান
ফোন নাম্বারঃ 01676-188534

Leave a Reply

Your email address will not be published.